জনতার হৃদয়ে স্থান পাওয়া ইউপি চেয়ারম্যান অষ্টগ্রামের কাছেদ মিয়া

0
566
ছবি: জনপ্রিয় চেয়ারম‌্যান মো: কাছেদ মিয়া

সর্বশেষ আপডেট 5 months আগে | নিউজ ভিশন ২৪

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট: মানুষের প্রতিটি সফলতার পিছনে লুকিয়ে থাকে কিছু কষ্ট, কিছু ত্যাগ আর কিছু পাওয়া না পাওয়ার হিসেব। তারপরও মানুষ এগিয়ে যায় তার কাঙ্খিত লক্ষ্য ধরে। তবে সামনে এগিয়ে যাওয়ার পথটা সবসময় মসৃণ থাকে না। পদে পদে নানা ঘাত-প্রতিঘাতের সম্মুখীন হতে হয়। তেমনি সব কিছুর তোয়াক্কা না করে এগিয়ে যাওয়া একজনের কথা বলবো আজ। যিনি অনেক বাধা-বিপত্তি পেড়িয়ে আজ জনতার প্রিয় চেয়ারম্যান হিসেবে নিজেকে সমাদৃত করেছেন।

তিনি হলেন কিশোরগঞ্জের হাওর উপজেলা অষ্টগ্রামের পূর্ব অষ্টগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান মো: কাছেদ মিয়া। তিনি, তাঁর পরিশ্রম, সৎ সাহস, ইচ্ছাশক্তি, একাগ্রতা আর প্রতিভার সমন্বয়ে সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য, স্থানীয় সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড সঠিক ও সুচারুভাবে বাস্তবায়নের জন্য, সর্বোপরি শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশের যে স্বপ্ন রয়েছে সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন প্রতিনিয়ত।

কাছেদ মিয়া ইতোমধ্যে কাজে সফলও হয়েছেন। ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবেও অষ্টগ্রাম উপজেলাব্যাপী সম্মানিত হচ্ছেন। তারুণ্যের প্রতীক এ ব্যক্তি তাঁর বয়স ও অভিজ্ঞতা দুটিকেই হার মানিয়েছেন। তাঁর কর্মকান্ডে মনে হয় তিনি নবীন নয়। তিনি অনেক প্রবীণ। তার অভিজ্ঞতা রয়েছে অনেক। এসকল সফল মানুষের পেছনে আছে কিছু গল্প, তা অনেকটা রূপকথার মতো। আর সে সব গল্প থেকে মানুষ খুঁজে নেয় স্বপ্ন দেখার সম্বল, এগিয়ে যাওয়ার জন্য নতুন প্রেরণা। দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই উল্লেখযোগ্য উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা রেখে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছেন।

এলাকার হতদরিদ্র মানুষের উন্নয়নে তাঁর নিরন্তর প্রয়াস সব মহলেই প্রশংসা কুঁড়িয়েছে। রাস্তা ঘাটের উন্নয়ন, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবায় বিশেষ অবদান, সামাজিক উন্নয়নসহ বিভিন্ন প্রকল্পের বাস্তবায়নে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়ে এলাকায় নিজের মুখ উজ্জ্বল করেছেন। তার সাথে দলের ভাবমূর্তির উন্নয়ন হয়েছে। অসংখ্য মসজিদ, মাদ্রাসা, স্কুল-কলেজ ও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের অন্যতম পৃষ্ঠপোষক সমাজসেবী মো: কাছেদ মিয়া।

ছবি: নিজ ইউনিয়নের বানভাসিদের খোঁজ খবর নিচ্ছেন কাছেদ মিয়া।

ব্যক্তি জীবনে তিনি একজন নির্লোভ, নিরহংকারী, ভদ্র, সদাহাস্যোজ্জ্বল ও সাদা মনের মানুষ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন বাস্তবায়নের প্রতিটি পদক্ষেপে নিজেকে বিলিয়ে দিয়ে যাচ্ছেন। সর্বোপরি তিনি কাজ করে যাচ্ছেন সাধারণ মানুষের কল্যাণে। মানুষের বিপদে আপদে দিন রাতের কথা না ভেবে ছুটে চলেছেন প্রতিনিয়ত। এলাকায় তিনি একজন সাদা মনের উদার মানসিকতার ও দানশীল মানুষ হিসেবে ইতিমধ্যে পরিচিতি লাভ করেছেন।

পূর্ব অষ্টগ্রাম ইউনিয়নের একাধিক বাসিন্দার সাথে কথা বললে তারা জানায়, আমরা তাকে চেয়ারম্যান মনে করি না। সে একজন কর্মঠ ও ভালো মানুষ। সে এই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হওয়ায় এলাকার অনেক উন্নয়ন হয়েছে। করোনার সময় যেখানে মানুষ ঘর থেকে বাহির হয় নাই তখন সে নিজে প্রতি মহল্লাতে গিয়ে আমদের খোঁজ খবর নিয়েছেন। যারা খাদ্যসংকটে ভুগেছে তাাদের সাথে সাথে চাল, ডাল, আলু, তেল, পেয়াজের ব্যবস্থা করে দিয়েছে। যখন দেশে করোনাকালীন মহামারিতে সারাদেশে বিভিন্ন জন প্রতিনিধিরা চাল, গম কেলেঙ্কারিতে ব্যস্ত তখন তার মতো চেয়ারম্যান নিজের পকেটের টাকায় অনেক মানুষকে সাহায্য সহযোগিতার মাধ্যমে মানবতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

কাছেদ মিয়া পূর্ব অষ্টগ্রাম ইউনিনের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে কাঁচা রাস্তা পাকাকরন, গ্রাম প্রতিরক্ষা বাধ, ফসল রক্ষা বাধ নির্মাণসহ উল্লেখযোগ্য অনেক কার্যক্রম হয়েছে। এছাড়া বয়স্ক, বিধবা, স্বামী পরিত্যক্তা মহিলা, প্রতিবন্ধী শিশু ও শিক্ষা বৃত্তি ভাতা প্রদান করছেন নিয়মিত। শিক্ষার মানোন্নয়নে নিয়েছেন নানা যুগোপযোগী ব্যবস্থা। এলাকার মসজিদ, মাদ্রাসা, মন্দির অবকাঠামো উন্নয়নেও তিনি গ্রহণ করেছেন আধুনিক ব্যবস্থা।

ছবি: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশ্রয়ন প্রকল্পে কাছেদ মিয়ার দান করা জমিতে গড়ে উঠা “রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক পল্লী”।

এছাড়া তিনি ইতোমধ্যে নিজ পৈর্তৃক সম্পত্তির প্রায় .৩০ শতাংশ ভূমি চলমান মুজিব বর্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গৃহহীনদের আবাসন প্রকল্পে দান করে স্থানীয় এমপি রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক পল্লী নামে একটি পল্লী গড়ে তুলেছেন। যেখানে প্রায় অর্ধশতাধিক গৃহহীন ও ভূমিহীন মানুষ আশ্রয় পেয়েছেন।

উল্লেখযোগ্য কাজের অন্যতম অংশ হিসেবে তারই দান করা পৈর্তৃক জমিতে  ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে প্রায় ১ কোটি ৬৮ লক্ষ টাকা ব্যয়ে আধুনিক ইউনিয়ন পরিষদ ভবন বর্তমানে নির্মাণাধীন রয়েছে। যার প্রায় ৮০ শতাংশ কাজ ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে।

ছবি: নির্মাণাধীন পূর্ব অষ্টগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ ভবন।

ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর মাত্র কিছু দিনের মাথায় তার প্রিয় ইউনিয়নকে উন্নয়নের মাষ্টার প্ল‌্যানের আওতায় এনে ব্যাপক উন্নয়ন মূলক কর্মসূচি হাতে নিয়েছেন। মেধা,মনন, কর্ম প্রয়াস শ্রম ও অধ্যাবশায়ের মাধ্যমে ব্যবস্থাপনাগত দক্ষতা অর্জনের মধ্য দিয়ে তিনি নিজেকে গড়েছেন পরিশীলিতভাবে এক উজ্জ্বল অধ্যায়ে। এলাকার গরীব দুঃখী মানুষের পাশে থেকে তিনি সব সময় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। সর্বোপরি গরীব মেহনতী মানুষের প্রকৃত জনদরদী হিসেবে তিনি এলাকায় ব্যাপক পরিচিত ও জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তিনি পূর্ব অষ্টগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এলাকার উন্নয়নে মহা-পরিকল্পনা গ্রহন করেছেন। গৃহিত পরিকল্পনার আলোকে তিনি একের পর এক উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন। কাছেদ মিয়া তার এসব উন্নয়নমূলক কাজের জন্য দেশের বিভিন্ন সংস্থা ও প্রতিষ্ঠান থেকে ইতোমধ্যে সেরা চেয়ারম্যান হিসেবে স্বীকৃতিস্বরূপ বহু সম্মাননা ও পদক পেয়েছেন।

ছবি: কাছেদ মিয়া তার কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ বিভিন্ন সময় পাওয়া সম্মাননা স্মারক।

এলাকা পরিদর্শনকালে পূর্ব অষ্টগ্রাম ইউনিয়নবাসী এ প্রতিবেদককে বলেন, পূর্ব অষ্টগ্রাম ইউনিয়নের বর্তমান জনপ্রিয় চেয়ারম্যান কাছেদ মিয়া পারিবারিক ঐতিহ্য অনুযায়ী ছোট বেলা থেকেই একজন সহজ-সরল-সৎ মনের অধিকারী দানশীল ও মেধাবী মানুষ। যার ফলে এলাকাবাসী তাকে পূর্ব অষ্টগ্রাম ইউনিয়নে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেছেন।

চেয়ারম্যান কাছেদ মিয়ার সাথে কথা বললে তিনি নিউজ ভিশনকে জানান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক মনোনীত আওয়ামী লীগ প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীক নিয়ে ২০১৬ সালে আমি নির্বাচিত হয়ে আমার ইউনিয়নের দায়িত্বভার গ্রহণ করি। আমার ইউনিয়নে অনেক কাজই অসম্পূর্ণ ছিলো। অনেক রাস্তাঘাটসহ ইউনিয়নের অবকাঠামোর অবস্থা অনেকটা নাজুক অবস্থানে ছিলো। আমি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে রাস্তাঘাট, গ্রাম প্রতিরক্ষা বাঁধসহ ইউনিয়নের অনেক দৃশ্যমান উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন হয়েছে। ভবিষ্যতেও ইউনিয়নের জনগণ চাইলে আমি তাদের পাশে থেকে একটি আদর্শ ইউনিয়ন হিসেবে আমার ইউনিয়নকে গড়ে তুলবো।

তিনি আরোও বলেন, কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস‌্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক একজন সহজ সরল মানুষ। তার সহযোগিতা আর দিক নির্দেশনায় আমার ইউনিয়নের সকল উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। তার সঠিক নির্দেশনা আমার ইউনিয়েনের জন‌্য অন‌্যতম আশীর্বাদ।

কিশোরগঞ্জের হাওর উপজেলা অষ্টগ্রামের পূর্ব অষ্টগ্রাম ইউনিয়নের কাছেদ মিয়া এখন জনতার চেয়ারম্যান। সবার প্রিয় এই ব্যক্তি তার সহজ সরলতা আর মেধা, শ্রম দিয়ে আমৃত্যু জনগণের সেবক হয়েই থাকতে চান বলে আশা ব্যক্ত করেন।

 

 

মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন
এখানে আপনার নাম লিখুন